ঈমানের বিষয়সমূহ, ইসলামের স্তম্ভ | Iman and Pillars of Islam


ইবন উমার (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ তিনি বলেন, ‘আল্লাহর রসূল (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ইরশাদ করেন, ইসলামের স্তম্ভ হচ্ছে পাঁচটি।’ আর আল্লাহর জন্য ভালবাসা ও আল্লাহর জন্য ঘৃণা করা ঈমান (Iman) এর অংশ।

১. আল্লাহ ব্যতীত প্রকৃত কোন উপাস্য নেই এবং নিশ্চয়ই মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) আল্লাহর রসূল-এ কথার সাক্ষ্য প্রদান করা।
২. সলাত ক্বায়িম করা।
৩. যাকাত আদায় করা।
৪. হাজ্জ সম্পাদন করা এবং
৫. রমযানের সিয়ামব্রত পালন করা (রোজা রাখা)।

(৪৫১৪; মুসলিম ১/৫ হাঃ ১৬, আহমাদ ৬০২২, ৬৩০৯) (আধুনিক প্রকাশনীঃ ৭, ইসলামী ফাউন্ডেশনঃ ৭)

আল্লাহ তা’আলার বাণীঃ “কোন পুণ্য নেই পূর্ব এবং পশ্চিম দিকে তোমাদের মুখ ফেরানোতে ; কিন্তু পুণ্য আছে কেউ ঈমান আনলে আল্লাহর উপর, আখিরাতের উপর, ফেরেশতাদের উপর, সকল কিতাবের উপর, আর সকল নবী-রসূলদের উপর, এবং অর্থ দান করলে আল্লাহর মহব্বতে আত্মীয়-স্বজন, ইয়াতিম, মিসকিন, মুসাফির, সাহায্যপ্রার্থী এবং দাস মুক্তির জন্য, সালাত কায়িম করলে, যাকাত দিলে, কৃত প্রতিশ্রুতি পূর্ণ করলে আর অভাবে, রোগে-শোকে ও যুদ্ধ বিভ্রাটে ধৈর্যধারণ করলে। এরাই হল প্রকৃত সত্যপরায়ণ, আর এরাই মুত্তাকী”- (আল-বাক্বারাহ ২/১৭৭)। “অবশ্যই সফলতা লাভ করেছে মুমিনগণ”-(সূরা মুমিনূন ২৩/১)।

আর আল্লাহর জন্য ভালবাসা ও আল্লাহর জন্য ঘৃণা করা ঈমানের অংশ। ‘উমার ইব্‌নু ‘আবদুল ‘আযীয (রহঃ) ‘আদী ইব্‌নু ‘আদী (রহঃ)-এর নিকট এক পত্রে লিখেছিলেন, ‘ঈমানের কতকগুলো ফর্‌য, কতকগুলো হুকুম-আহকাম, বিধি-নিষেধ এবং সুন্নাত রয়েছে। যে এগুলো পূর্ণভাবে আদায় করে, তার ঈমান পূর্ণ হয়। আর যে এগুলো পূর্ণভাবে আদায় করে না, তার ঈমান পূর্ণ হয় না। আমি যদি বেঁচে থাকি তবে অচিরেই এগুলো তোমাদের নিকট ব্যক্ত করব, যাতে তোমরা তার উপর ‘আমল করতে পার। আর যদি আমার মৃত্যু হয় তাহলে জেনে রাখ, তোমাদের সাহচর্যে থাকার জন্য আমি আকাঙ্ক্ষিত নই’।

ইবরাহীম (‘আঃ) বলেন, ‘তবে এ তো কেবল চিত্ত প্রশান্তির জন্য’- (সূরা আল-বাক্বারাহ ২/২৬), মু’আয (রাঃ) বলেন, “এসো আমাদের সঙ্গে বস, কিছুক্ষণ ঈমানের আলোচনা করি”; ইব্‌নু মাস’উদ (রাঃ) বলেন, ‘ইয়াকীন হল পূর্ণ ঈমান’, ইব্‌নু ‘উমার (রাঃ) বলেন, ‘বান্দা প্রকৃত তাকওয়ায় পৌছতে পারে না, যতক্ষণ পর্যন্ত সে, মনে যে বিষয়ের সন্দেহের সৃষ্টি করে, তা পরিত্যাগ না করে’; মুজাহিদ (রহঃ) এ আয়াতের ব্যাখ্যায় বলেন, “অর্থাৎ হে মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ! আমি আপনাকে এবং নূহকে একই ধর্মের আদেশ করেছি”- (সূরা শূরা ৪২/১৩), ইব্‌নু ‘আব্বাস (রাঃ) বলেন, “অর্থাৎ পথ ও পন্থা”- (সূরা আল-মায়িদাহ ৫/৪৮)।

বিভিন্ন প্রাসঙ্গিক বিষয় জানতে ভিজিট করুন www.prosno.xyz | সাথেই থাকুন www.IslamBangla.Com ভিজিট করতে থাকুন ।

আল-কোরআনের সূরা বাকারা দুই হতে চার আয়াতে ঈমান সম্পর্কে নিন্ম বিষয় গুলি উল্লেখ করা হয়েছেঃ

  • এক. একক ইলাহ হিসেবে আল্লাহকে বিশ্বাস করা।
  • দুই. আল্লাহর ফেরেশতাদের প্রতি বিশ্বাস করা।
  • তিন. সমস্ত আসমানী কিতাব সমূহতে বিশ্বাস।
  • চার. সকল নবী ও রাসূলগণের প্রতি বিশ্বাস।
  • পাঁচ.তাক্বদীর বা ভালো মন্দের ওপর আল্লাহর ক্ষমতা রয়েছে বলে বিশ্বাস করা।
  • ছয়. আখিরাত বা পরকালের প্রতি বিশ্বাস।
  • সাত. মৃত্যুর পর পুনঃজীবিত হওয়ার প্রতি বিশ্বাস।
  • আল-কোরআনের সূরা-বাকারা এর দুই হতে চার আয়াতে ঈমান সম্পর্কে এই বিষয় গুলি উল্লেখ করা হয়েছে।

আল্লাহ আমাদের সঠিক ভাবে আমলের তৌফিক দান করুক। আমিন