মুসলিম বিশ্বে যে মানুষটি স্বর্ণ যুগের শ্রেষ্ঠ চিকিৎসক

ইবন আল নাফীস (১২১৩ – ১২৮৮) একজন বিখ্যাত আরব বিজ্ঞানী ও চিকিৎসাবিদ ছিলেন।তার পুরো নাম আলা আদদিন আবু আল হাসান আলি ইবনে আবি হাজামম আল কুরায়শি আল দামেস্কি। ইবনে নাফিস তার ডাকনাম। এ নামেই তিনি বেশি পরিচিতি লাভ করেন। কেউ আবার তাকে জানেন ইবনে আল নাফিস নামে।তিনি সিরিয়ার দামেস্কে জন্মগ্রহণ করেন এবং মিশরের কায়রোতে কর্মজীবন অতিবাহিত করেন।

অনলাইনে নিরাপদ থাকতে ব্যাবহার করুন “Maxthon ব্রাউজার“। ডাউনলোড করতে এইখানে ক্লিক করুন

মানবদেহে বায়ু ও রক্ত সঞ্চালন প্রক্রিয়া আবিষ্কারের জন্য বিখ্যাত ছিলেন ইবনুন নাফিস। তিনি মানবদেহে রক্ত সঞ্চালন পদ্ধতি, ফুসফুসের সঠিক গঠন পদ্ধতি, শ্বাসনালি, হৃৎপিণ্ড, শরীরে শিরা উপশিরায় বায়ু ও রক্তের প্রবাহ ইত্যাদি সম্পর্কে তথ্য দিয়ে বিশ্বের চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাণ্ডারকে সমৃদ্ধ করেন।তিনি সর্বপ্রথম (উইলিয়াম হার্ভের ৩০০ বৎসর পূর্বে) রক্ত সঞ্চালন পদ্ধতি সম্বন্ধে সঠিক বর্ণনা করেন। রক্ত চলাচল সম্বন্ধে তৎকালীন প্রচলিত গ্যালেনের মতবাদকে ভুল প্রমাণ করে চিকিৎসাবিজ্ঞানে ১৩০০ শতাব্দীতে বিপ্লবের সূচনা করেছিলেন তিনি। ‘আল-শামিল ফি আল-তিব’ নামের ৩০০ খণ্ডের এক বিশাল বই লিখেছিলেন। এ বইয়ের পাণ্ডুলিপি বর্তমানে দামেস্কে সংরক্ষিত আছে।চিকিৎসাবিজ্ঞানের রেফারেন্স হিসেবে ব্যবহৃত তার লেখা বুগিয়াত আল তালিবিন ওয়া হুজ্জাত আল মুতাতাব্বিন বইটি ইতিহাসে স্থান করে নিয়েছে। চোখের চিকিৎসায় বিশেষ সহযোগী বই তার লেখা আল মুহাদ্দাব ফি ই-কাহ্ল চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।